এম এস ওয়ার্ড ২০১৩ তে রিবনের ব্যবহার

কিভাবে.কম এ আপনাকে স্বাগতম। আমরা যারা অফিস প্রোগ্রাম ব্যবহার করছি তাদের হয়তো অনেকেই জানেন এবার অনেকেই জানেন না রিবন কি বা এটি কিভাবে ব্যবহার করতে হয়। আসলে মজার বিষয় হল অফিস প্রোগ্রাম ব্যবহারকারী সকলেই রিবন ব্যবহার করে থাকেন। কিন্তু হয়তো বিষয়টি জানেন না এটিই রিবন। আসুন আজ আমরা আপনাদের পরিচয় করিয়ে দেবো অফিস প্রোগ্রাম ২০১৩ তে রিবন এবং এর নানাবিধি কাজ সম্পর্কে।

রিবন হল অফিস প্রোগ্রামের সকল কার্জ সম্পাদনের মূল চাবিকাঠি। সাধারণত কোন ডকুমেন্ট তৈরি করার জন্য যে সকল ট্যাব এবং ট্যাবের মধ্যে থাকা বিভিন্ন গ্রুপের অপশন গুলো ব্যবহার করছি সেই সম্পূর্ণ মেনুবারটিকে বলা হয় রিবন।

 

Introduction of Ribbon in ms word 2013

 

উপরের চিত্রে দেখুন, এম এস ওয়ার্ড ২০১৩ প্রোগ্রামের রিবন দেখানো হয়েছে।

আপডেট ভারসনের এই এক ব্যাপার, একটু বাড়তি সুবিধা তো থাকবেই। এম এস ওয়ার্ড ২০১০ এর রিবনের ট্যাব সংখ্যা এবং এম এস ওয়ার্ড ২০১৩ তে ট্যাব সংখ্যা একই। কিন্তু এম এস ওয়ার্ড ২০১৩ তে ট্যাবের মধ্যে বিভিন্ন গ্রুপ এবং গ্রুপের অপশন গুলোর ব্যবহার আরও সহজ এবং আকর্ষণীয় ভাবে দেয়া রয়েছে। যদিও এম এস ওয়ার্ড ২০১০ এবং ২০১৩ এর অপশন গুল মোটামুটি ভাবে একই রকম। কিন্তু আপডেট ভার্সন ব্যবহার করার মজাই একটু আলাদা, তাতে করে সময়ের সাথে নিজেকেও আপগ্রেট করে নেয়া যায় এবং সময়ের সাথে তাল মিলিয়েও চলা যায়।

নিচে এম এস ওয়ার্ড ২০১০ প্রোগ্রামের রিবনেরা একটি ছবি দেয়া হল, উপরের দেয়া ২০১৩ এর রিবনের সাথে মিলিয়ে দেখুন।

 

Ribbon of MS Word 2010

 

এছাড়াও ২০১৩ তে রিবন ব্যবহারে জন্য ডিসপ্লে অপশনকে একটু নতুন রুপ দেয়া হয়েছে। এখানে Ribbon Display option নামের একটি অপশন দেয়া রয়েছে। এই অপশনটি ব্যবহার করে আপনি রিবনকে অটো হাইড, অনলি ট্যাব শো, শো ট্যাব উইথ ট্যাব কম্যান্ডস করতে পারবেন। যেমন আমি ব্যবহার করছি অনলি ট্যাব শো।

 

 

Use of Ribbon Display Option in MS Word 2013

 

উপুরের চিত্রে দেখুন, Ribbon Display option টি এবং এর ভেতরের অপশন গুলো চিহ্নিত করা হয়েছে।

যদি আপনি অটো হাইড অপশনটি ব্যবহার করেন তাহলে যখন আপনি ওয়ার্ড পেইজে কাজের জন্য ক্লিক করবেন তখন রিবনটি হাইড হয়ে উপরের অংশে যাবে। এবং সেখানে হাল্কা আকাশী রঙের আক্রি বার দেখা যাবে যখন আপনি বারে ক্লিক করবেন তখন রিবন এবার ডিসপ্লে করবে।

 

Find Ribbon After Open Word 2013

 

উপরের চিত্রে লক্ষ্য করুন, রিবনের অংশে শুধু হাল্কা আকাশী কালারের একটি বার দেখা যাচ্ছে।

যখন আপনার রিবন থেকে কোন ট্যাব অথবা যে কোন অপশন ব্যবহার করার প্রয়োজন হবে তখন এই হাল্কা আকাশী কালারের বারে মাউস রেখে ক্লিক করুন। তাহলে সম্পুর্ন রিবনটি চলে আসবে, আবার যখন আপনি পেইজে কাজ করার জন্য ক্লিক করবেন তখন অটোম্যাটিক আবার রিবন হাইড হয়ে যাবে। এটি শুধু মাত্র অফিস প্রোগ্রাম ২০১৩ তে দেয়া হয়েছে। অনেকেই হয়তো ভাবছেন বিষয়টি হয়তো ঝামেলার, কিন্তু এতে করে সুবিধাও রয়েছে। আসলে ব্যবহার জানলে কোন কিছুই ঝামেলার নয়। যে কোন প্রোগ্রামের আপডেট ভার্সন গুলোতে সবসময় বেশি সুবিধার ও ব্যাপক ভাবে ব্যবহারের জন্য নতুন নতুন অপশন সংযোগ করা হয়ে থাকে।

রিবনের সম্পর্কিত আরও কিছু তথ্য হলঃ অফিস ওয়ার্ড ২০১৩ প্রোগ্রামের রিবনে ট্যাবের সংখ্যা রয়েছে দশটি। প্রতিটি ট্যাবে রয়েছে গ্রুপ কমান্ড। প্রতিটি ট্যাবের এই গ্রুপ কমান্ড গুলোর সঠিক প্রয়োগ জানতে পারলেই আপনি হয়ে যাবেন লেটেস্ট ভার্সন এম এস ওয়ার্ড ২০১৩ এর মাস্টার। যারা পূর্বে এম এস ওয়ার্ড ২০১০ নিয়ে কাজ করেছে তাদের পক্ষে ২০১৩ নিয়ে কাজ করা সহজ হবে। কারন ২০১৩ তে কিছু বিষয় আপগ্রেট করা হলেও ২০১৩ এর সাথে এর যথেষ্ট মিল রয়েছে।

এখন আশা করছি রিবন সম্পর্কে আগের মতো কনফিউশন নেই। আসলে কোন বিষয় নিয়ে কাজ করতে গেলে সেই বিষয় সম্পর্কে ভালো ধারণা থাকা প্রয়োজন। তাহলে বিষয়টি খুব সহজেই আয়ত্ব করা যায়। আমরা চেষ্টা করেছি আপনাদের ওয়ার্ড প্রোগ্রামের এই নতুন ভার্সন সম্পর্কে কিছু তথ্য দেয়ার জন্য। আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ…

Related Post

রিবন (Ribbon) ব্যবহার করা... রিবন (Ribbon) অফিস ২০০৭ ও ২০১০ এ আছে যা এর আগের Version গুলো তে নেই । এটি অনেকটা আগের toolbar এর মতো কাজ করে এবং এর ব্যবহার আরও ব্যাপক মজার ।  এখানে আ...

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*