কীভাবে ব্যাংক হিসাব খুলবেন: সাধারণভাবে নাকি অনলাইনে!

আমরা ইতিমধ্যেই জেনেছি যে ব্যাংক একাউন্ট খুবই গুরুত্বপূর্ণ একাউন্ট। সেই সাথে আমরা এটা্ও জানতে পেরেছি যে ব্যাংক হিসাব খুলতে গেলে কি কি কাগজ পত্র প্রয়োজন। একই সাথে ব্যাংক কি এবং কি ধরণের হিসাব ব্যাংকে খোলা সম্ভব সেটাও জানাবার চেষ্টা করেছি আমরা। আজ আমরা জানব কীভাবে ব্যাংক হিসাব খুলবেন: সাধারণভাবে নাকি অনলাইনে! জ্বী, ব্যাংক হিসাব আপনি চাইলে ব্যাংকে গিয়ে সাধারণভাবে খুলতে পারবেন। আবার চাইলে আপনি অনলাইনে ঘরে বসেই ব্যাংক হিসাব খুলতে পারবেন। তাই চলুন আজ আমরা জানার চেষ্টা করি কীভাবে ব্যাংক হিসাব খুলবেন: সাধারণভাবে নাকি অনলাইনে!


প্রথমেই এটা পরিষ্কার করে নেয়া ভাল যে সাধারণভাবে খোলা হিসাবও কিন্তু অনলাইন হিসাব। এখানে সাধারণভাবে বলতে বোঝানো হচ্ছে যে ব্যাংকে সরাসরি গিয়ে। অন্যদিকে অনলাইনে বলতে বোঝানো হয়েছে যে ব্যাংকে না গিয়ে ঘরে বসেই হিসাব খোলার। সেকারণেই কীভাবে ব্যাংক হিসাব খুলবেন: সাধারণভাবে নাকি অনলাইনে সে বিষয়ে পূর্ণাঙ্গ ধারণা থাকা দরকার।

bank account

bank account

কীভাবে সাধারণভাবে ব্যাংক হিসাব খুলবেন

আপনি যদি সাধারণভাবে ব্যাংক হিসাব খুলতে যান বা ব্যাংকে গিয়ে হিসাব খুলতে চান তাহলে নিম্নোক্ত জিনিস গুলো অবশ্যই থাকবে-

ক. আবেদন ফরম/আবেদনপত্রঃ যে ব্যাংকে হিসাব খুলবেন সেই ব্যাংক আপনাকে একটি আবেদন পত্র দিবে যার প্রতিটি অংশের পূরণ করতে হবে।

এই আবেদন পত্রে  নির্দিষ্ট স্থানে গ্রাহক হিসেবে আপনাকে সাইন করতে হবে।

তবে সাইন করার আগে অবশ্যই একাউন্ট ফরমটি  সম্পূর্ণ পড়ে নিয়ে যথাযথ তথ্য দিয়ে ফরমটি পূরণ করবেন।

খ. স্পেসিমেন সিগনেচার কার্ড/এসএস কার্ডঃ  ব্যাংক অফিসার রা সাধারণত একে SS Card নামে বলে থাকেন।

এতে গ্রাহক কে ভালভাবে এবং সতর্কভাবে স্বাক্ষর করতে হয়।

প্রায়শই ক্ষেত্রে এই কার্ড হিসাবের আবেদন ফরমের সাথেই দিয়ে দেওয়া হয়।

গ. পরিচয়দানকারী/ইনট্রডিউসারঃ  গ্রাহকের একজন পরিচয় দানকারী প্রয়োজন হয়।

গ্রাহকের পরিচয় নিশ্চিতকরণে এবং অবস্থান শনাক্তকরণে একজন পরিচয়দানকারী থাকতে হয়।

হিসাব খোলার সময় বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই পরিচয়দানকারী স্বশরীরে উপস্থিত না হলেও চলে।

তবে বর্তমানে ব্যাংক সমূহ এর বাধ্যবাধকতা কিছুটা শিথীল করেছে।

ঘ. নমিনি বা মনোনীত ব্যাক্তিঃ  গ্রাহকের অবর্তমানে তার হিসাবের যিনি মালিক হবেন তাকেই বলা হচ্ছে নমিনি।

এক্ষেত্রে রক্ত সম্পর্কের কাউকেই ব্যাংক প্রাধান্য দেয়।

প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নিয়ে আপনি ব্যাংকে গেলেই হিসাব খুলতে পারবেন।

তবে যদি একবার সংশ্লিষ্ট ব্যাংকের হেল্পলাইনে কথা বলে নেন তাহলে আরও বেশি সহজ হবে আপনার জন্য।

কোন কোন ব্যাংকে অনলাইনে হিসাব খুলতে পারবেন এবং কিভাবে

এখনকার সময়ে স্বশরীরে ব্যাংক হিসাব খোলার পদ্ধতি কঠিন নয়।

তবে ঘরে বসেও অনলাইনে ব্যাংক হিসাব খুলতে পারবেন। আর তার জন্য নিম্নোক্ত তথ্যগুলো আপনার সাহায্য করতে পারে-

  1. ইসলামী ব্যাংকঃ CellFin এপ হচ্ছে ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড এর এ্যাপ। যা  হিসাব খোলার পাশাপাশি ফান্ড ট্রান্সফার এ ব্যবহৃত হয়।
  2. সিটি ব্যাংকঃ সিটি ব্যাংকে হিসাব খোলার জন্য উপযুক্ত হল Ekhoni App.
  3. ডাচ বাংলা ব্যাংকঃ ডাচ বাংলা ব্যাংকে হিসাব খুলতে  Nexus Pay অ্যাপ ব্যবহার করতে পারেন। তবে কাগজপত্র কিন্তু অবশ্যই ব্যাংকে জমা দিতে হবে।
  4. ন্যাশনাল ব্যাংক লিমিটেডঃ ন্যাশনাল ব্যাংকের হিসাব খোলার জন্য ব্যবহার করুন  NBLiPower অ্যাপ।
  5. সোনালি ব্যাংকঃ  সাধারণ হিসাব খোলার জন্য Sonali e sheba  এপ ব্যবহার করুন। কিন্তু যদি আপনি ইন্টারনেট ব্যাংকিং করতে চান তাহলে Sonali e Wallet ব্যবহার করে নিন।
  6. ইউসিবিঃ UClick অ্যাপ হচ্ছে ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক লিমিটেড এর হিসাব খোলার এপ। এর পাশাপাশি অনলাইন ব্যাংকিং ও করা যায় এই এপ এর মাধ্যমে।

এছাড়া্ও আইএফআইসি ব্যাংক লিমিটেড ও ব্যাংক এশিয়া লিমিটেড এর হিসাব অনলাইন লিংকের মাধ্যমে খোলা যায়। তবে উভয় ক্ষেত্রেই আপনাকে অবশ্যই ব্যাংকে গিয়ে কাগজপত্র দিয়ে আসতে হবে। নতুবা লেনদেনে সম্পূর্ণ বা আংশিক লেনদেনে সমস্যার সম্মুখীন হবেন।

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!