ফটোশপ কালার ধারনা – Photoshop 14

ফটোশপ নিয়ে কাজ করবেন আর কালার এর ধারনা থাকবেনা সেটা কি হয় ? ছবি তো আসলে বিভিন্য রং এর মিশ্রণ । রং নিয়ে প্রচুর কাজ করতে হবে ফটোশপ এ । আর তাই আজ আপনাদের ফটোশপ কালার ধারনা দেবার চেস্টা করছি আমরা । তো চলুন ফটোপশ কালার পরিচিতি টা সেরে ফেলি আজ 🙂

ফটোশপ কালার ধারনা বা কালার পরিচিতি

ফটোশপের কালার পিকার টা নিয়ে একটু কথা বলি চলুন …

ফটোশপ এর টুলবার থেকে ফরগ্রাউন্ড কালার এ ক্লিক করলে নিচের মতো কালার পিকার চলে আসে । তো নিচের ছবিটির ডান পাশে নিচে একটু দেখুন, ৪ টি ব্লক করে সিলেক্ট করে রেখেছি, এগুলো এক একটি কালার এর ম্যাথর্ড । অর্থাৎ RGB যেমন একটি কালার ম্যাথর্ড, তেমনি, HSB ( Hue, Saturation, Brightness ) , Lab এবং CMYK (Cyan, Magenta, Yellow, and Key (black))  ও আলাদা আলাদা কালার ম্যাথর্ড ।

আর সবার নিচে দেখুন একটি ঘরে # এর ডান পার্শে একটি বক্স আছে যেখানে ৬ টি সংখ্যা বা বর্ন আছে । সেটিকে আমরা Hexadecimal Color বা Hash Color বলে থাকি । হেক্সাডেসিমেল কালার ও আরজিবি কালারের মতোই কাজ করে এবং ওয়েব থেকে কালার নিলে দেখবেন যে বেশির ভার সময় ই হেক্সাডেসিমেল কালার পাচ্ছেন । আবার এটা সহজেই কপি করা যায় কালার পিকার থেকে ।

ওয়েব বা ডিজিটাল মিডিয়াতে যে কালার ব্যবহার হয় যেগুলোকে RGB ( Red Green Blue ) কালার বলে । RGB কালার কে ডিসপ্লে কালাও বলা হয়ে থাকে ।

Photoshop color picker

Photoshop color picker

তো আমরা এখন আলোচনা করবো RGB ও Hex color নিয়ে । এ দুটি কারার ম্যাথর্ড সম্পর্কে ধারনা থালকে অনেক কিছু করা যাবে । যদি কেউ ওয়েব ডিজাইন এর কাজ করতে চান তবে RGB Color বা Hexadecimal Color আপনাকে ছাড়ছেনা 🙂

RGB কালার ধারনা

উপরের ছবিটিতে দেখুন, RGB এর ঘরগুলোতে R এলে ভেলু 255, G 0 এবং  B 0 . RGB কালার এ, Red, Green ও Blue কালার গুলোর মান সর্বনিম্ন হয় 0 এবং সর্বোচ্চ 255 হয়ে থাকে । আসলে  28 = 256,  কিন্ত যেহেতু 1  থেকে নয়, 0 থেকে শুরু করি আমরা তাই এই রেন্জটি হয় 0 – 255.

তো লাল কালার লাগলে, সেটির ভেলু হবে সবচেয়ে বেশি আর অন্য কালার গুলো ( সবুজ ও নীল ) এর ভেলু হবে সবচেয়ে কম । তো উপরের ভেলু ( 255 , 0 , 0 ) লাল কালার দিবে ।

আবার যদি সবুজ কালার লাগে, তো সবুজ হবে সবচেয়ে বেশি এবং অন্যগুলো শুন্য ( 0 , 255 , 0 ).  আর নীল কালার লাগলে কি করা লাগবে সেটা আশা করি নতুন করে বলা লাগবেনা ।

লাল সবুজ নীল তো হলো, অন্য রং !! আসলে এই তিন রং এর মিশ্রণে অারো অনেক রং বানাবো যায় । আর আমাদের তো আছেই কালার পিকার । নিচের ছবিটি দেখুন…

RGB Color

RGB Color

দেখা যাচ্ছে যে যেখানে কোন কালার নেই, সেটি আসলে কালো, তাহল RGB তে  ( 0, 0, 0, ) হবে কালো কালার । আবার দেখুন সবগুলো কালার মিলে হয়েছে সাদা কালার। লাল সবুজ মিলে হয়েছে হলুদ রং । সবুজ নীল মিলে হয়েছে সায়ান ( Cyan ) আর ণীল ও লালে হয়েছে  মেজেন্টা ( Magenta ) কালার । Cyan, Magenta, Yellow ও Black কিন্তু CMYK এর ভিতরের জিনিস 🙂

তো RGB এর আলাদা আলাদা মানের উপর আলাদা আলাদা কালার হবে । নিচের ছবিটি দেখুন,

RGB color in Photoshop color picker

RGB color in Photoshop color picker

সবুজের কাছাকাছি একটি কালার যার নাম আমার জানা নাই 🙂 এবং এর RGB মান 62, 187, 62 . ডান পাশের বক্স থেকে যে কোন কালার নিলে RGB এর মান বদল হবে । আর সেই বক্সটির ডান থেকে লম্বা অংশ থেকে মুল কালার ঠিক করে নিন।

Hexadecimal কালার ধারনা

Hexadecimal কালাও RGB এর মতোই, তবে এর ভেলু বা মান গুরো ভিন্য হয়ে থাকে । Hexadecimal  number system ব্যবহার করে থাকে অর্থাৎ 0-9 a-e, 16 Digit.

উপরের ছবিটির নিচের ঘরে যেখানে 3ebb2e লেখা আছে সেটি ই হেক্সাডেসিমাল কালার । তো এখানে এগুলো জোড়ায় জোড়ায় হয়, 3ebb2e  কে ভাগলে নিচের মতো হবে ।

RR GG BB
3e bb 2e

অর্থাৎ প্রথম জোড়াটি Red বা লাল কালার নির্দেশ করে, মাঝের জোড়াটি  Green বা সবুজ এবং শেষের জোড়াটি Blue  বা নীল কালার । সাদা কালার চাইলে সবগুলোই হবে fffffff ( Hexadecimal  number system এর সর্বোচ্চ নাম্বার ) আর কালো চাইলে হবে 000000. আর তাহলে লাল সবুজ ও নীল রং এর হেক্স কোড কি হবে আশা করি বলতে হবেনা 🙂 আপনার নিচে কমেন্টে আমাদের জানিয়েন 🙂

তো এই ছিলো ফটোশপ এ  কালার এর ধারনা দেবার আমাদের সামান্য চেস্টা । আপনাদের কেমন লাগছে জানাবেন, কিংবা যদি কোন সাজেশন থাকে …  ভালো লাগলে শেয়ার করতে ভুলবেনা

Related Post

ফটোশপ শেপ টুল এর ব্যবহার – Photoshop 50... আমরা প্রায়ই বিভিন্য শেপ বা কাঠামো নিয়ে কাজ করি । এর আগে পেন টুলের ব্যবহার এ ও বেশ কিছু শেপ বানানো দেখিয়েছিলাম আমরা । আর আজ আলোচনা করবো কিছু রেডিমেট শে...
হ্যান্ড টুল ও জুম টুলের ব্যবহার – Photoshop ... বড় ইমেজ গুলো ছোট বা বড়ো করে কাজ করার প্রয়োজন পড়ে এবং বিভিন্য দিকে সরিয়ে সরিয়েও কাজ করার প্রয়োজন পড়ে । ফটোশপে ছবিগুলো ছোট বা বড়ো করে দেখার জন্য Zoom To...
ম্যাজিক ইরেজার টুলের ব্যবহার – Magic Eraser ... আমরা আগের পোস্টে আলোচনা করেছি, ব্যাকগ্রাউন্ড ইরেজার টুলের ব্যবহার নিয়ে, আজকের আলোচনায় দেখাবো ফটোশপে কিভাবে ম্যাজিক ইরেজার টুল ব্যবহার করা যায় । ম্যাজি...
হিস্টোরি ব্রাশ টুলের ব্যবহার – History Brush... আমরা ফটোশপে ক্লোন স্ট্যাম্প টুল নিয়ে আলোচনা করার সময় দেখিয়েছি যে আপনি চাইলে যে কোন ছবি বা ছবির একটি অংশ ক্লোন করে নিতে পারেন । আর এর ঠিক আগের ফটোশপ টি...
বার্ন টুলের ব্যবহার – Burn Tool – Phot... বার্ন টুল ব্যবহার করে ছবির নিদ্রিষ্ট কোন অংশের আলোকিত অংশ ড্র্যাগ করে অন্ধকারে পরিনত করা যায় । এটা ডজ টুলের বিপরিত কাজ করে । ধরা যাক, ডজ টুল ব্যবহার ক...
ফটোশপে আনডু রিডু ও ফটোশপ হিস্টোরি – Photosho... আজকে আমাদের আলোচ্য বিষয়, ফটোশপে কিভাবে আন্ডু, রিডু এবং ফটোশপ হিস্টোরি সম্পর্কে । ফটোশপে মাঝে মাঝে কাজ করবার সময় ভুল বসত ইমেজে বা ডকুমেন্টে অনেক কিছু ক...

You may also like...

1 Response

  1. Md Sumon Shah says:

    apnader web page new window open hoy na

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!