কীভাবে ব্যাংক ঋণে জামানত প্রদান করা হয়: জামানতের প্রকারভেদ

লেনদেনের ক্ষেত্রে জামানত অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। সেই সাথে গুরুত্বপূর্ণ হল জামিনদার। কীভাবে ব্যাংক ঋণে জামানত প্রদান করা হয় সে সম্পর্কে জানতে হলে অনেক বিষয়ই জানতে হয়। যেমন জামানতের প্রকারভেদ, জামানতের গ্রহণযোগ্যতা আছে কিনা ইত্যাদি। তাই চলুন আজ আমরা জানবার চেষ্টা করি কীভাবে ব্যাংক ঋণে জামানত প্রদান করা হয়, তাদের প্রকারভেদ, ও বিভিন্ন প্রকারের সংক্ষিপ্ত পরিচিতি।


কীভাবে ব্যাংক ঋণে জামানত প্রদান করা হয় জানতে জামানতের প্রকারভেদ এর জ্ঞান ঋণ গ্রহীতা ও ঋণ প্রদানকারীর বেলায় খুব ভাল সহায়ক হয়।

ব্যাংক জামানতের প্রকারভেদ

জামানতের প্রকারভেদ নির্ভর করে তা কোন দৃষ্টিকোণ থেকে প্রকার ভেদ করা হচ্ছে তার উপর। যেমন:

ক. প্রাথমিক জামানত বা সরাসরি জামানত

খ. সহযোগী জামানত

আবার সরিয়ে নেবার উপর নির্ভর করে-

ক. অস্থাবর বা যা সহজে সরানো যায়

খ. স্থাবর বা যা সহজে সরানো যায় না

আবার অনুভবের উপরেও নির্ভর করে ভাগ করা যায়

ক. দর্শনীয় বা স্পর্শযোগ্য

খ. অনুভব যোগ্য

আবার দালিলিক বা অদালিলিক ভিত্তিতে ভাগ করা যায়

ক. কাগজ করা বা দালিলিক

খ. কাগজে নয় বা অদালিলিক

এছাড়াও আছে

ক. ব্যক্তিগত জামানত

খ. বাস্তব জামানত

কিছু জামানতের সংক্ষিপ্ত

কিছু প্রকার জামানতের সংক্ষিপ্ত আলোচনা নিচে করা হল। যা সাধারণভাবে বহুল ব্যবহৃত হয়।

প্রাথমিক জামানত (Primary Security)

ব্যাংক ঋণ প্রদানের ক্ষেত্রে প্রথমেই যে বিষয় বিবেচনায় নেয় তাই সাধারণত প্রাথমিক সিকিউরিটি বলে গণ্য হয়।

গ্রাহকের ব্যক্তিগত জামানতই প্রাথমিক ভাবে ঋনের নিশ্চয়তা দেয়।

এক্ষেত্রে গ্রাহকের সততা, ব্যবসায়ীক সুনাম সক্ষমতা ইত্যাদিকে প্রাথমিক জামানত হিসেবে গণ্য করা হয়।

এগুলো আবার ব্যক্তিগত জামানতের আওতাভুক্ত করা হয়।

এছাড়াও প্রাথমিক পণ্য অর্থাৎ যে পণ্যের ভিত্তিতে ঋণ প্রদান করা হয় সেটিও প্রাথমিক জামানতের অংশ।

একে আবার পণ্য জামানত বা Good Security বলা হয়। তবে পণ্য যদি ব্যাংকের দখলে তাকে তবে তা প্লেজ হবে।

অপরদিকে যদি তা গ্রাহকের অধীনে থাকে তবে তা হাইপোথিকেশন হবে।

এদিক থেকে দেখলে জামি বা স্থাপনাও প্রাথমিক জামানত এর আওতায় পড়বে (বিশেষ লোনের ক্ষেত্রে) তবে তা মর্টগেজ হবে।

সহযোগী জামানত (Collateral Security)

প্রাথমিক জামানতের সাথে যা নেয়া হয় তাকেই সহযোগী জামানত বলা হয়।

এ ধরনের জামানত সাধারণত বিনিয়োগের নিশ্চয়তা আরও বেশি পাকাপোক্ত করার জন্য।

এক্ষেত্রে যে কোন স্থাবর সম্পত্তিকে জামানত হিসেবে নেয়া হয়।

অতিরিক্ত জামানত (Additional Security)

বিনিয়োগ গ্রহীতা ব্যাংকের নিশ্চয়তা বৃদ্ধির জন্য যা কিছুই জামানত হিসেবে গ্রহণ করা হয় তাকেই অতিরিক্ত জামানত বলা হয়।

তৃতীয় পক্ষের সহযোগী জামানত

তৃতীয় কোন পক্ষ থেকে বিনিয়োগে জামানত নেয়া যেতে পারে।

এক্ষেত্রে গ্রাহকের নিকটাত্মীয় তথা স্বামী, স্ত্রী, পিতা, মাতা, ছেলে, মেয়ে, ভাই, বোন প্রমুখ।

তবে এদের বাইরে যদি কাউকে জামানত রাখতে হয় তবে তা অনুমতি স্বাপেক্ষে নেয়া হয়।

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!