সিম নাম্বার ঠিক রেখে অপারেটর বদল

ধরে নিলাম , আপনি বর্তমানে রবি বা বাংলালিংক সিম ব্যবহার করছেন । আপনি চাচ্ছেন সিম নাম্বার ঠিক রেখে অন্য অপারেটর পরিবর্তন করতে । যেমন, আপনি রবি অপারেটরে আছে, রবির নাম্বার যা আছে থাকবে শুধু অপারেটর চেঞ্জ করবেন। হতে পারে জিপি, বাংলালিংক, এয়ারটেল কিংবা টেলিটক । এর ফলে আপনি ওই অপারেটরের বিভিন্ন ধরনের সেবা উপভোগ করতে পারবেন ।  চলুন আজকের আলোচনায় জেনে নেই, কিভাবে নাম্বার ঠিক রেখে অপারেটর বদল করা যায় ।  তবে তার আগে জেনে নেই এমএনবি কি ?

এমএনবি কি (MNP)

এমএনপি হচ্ছে সংক্ষিপ্ত রুপ এর ফুল ফর্ম হচ্ছে মোবাইল নাম্বার পোর্টবিলিটি (MNP- Mobile Number Portability)  । অর্থাৎ নিজের নাম্বার পরিবর্তন না করে অন্য অপারেটরে যাওয়া কে এমএনবি পদ্ধতি বলে । আপনি জিপির নাম্বার ঠিক রেখে বাংলাদেশের যেকোন সিম অপারেটরে MNP করার মাধ্যেমে যতে পারেন ।

নোটঃ নাম্বার এমএনপি করার ৯০ দিন পর আপনি অন্য অপারেটর বা আগের অপারেটরে ফিরে আসতে পারেন । এমএনপি সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে নির্দিষ্ট অপারেটর সেবা কেন্দ্র থেকে তথ্য সংগ্রহ করুন ।

রবি অপারেটরে আসার নিয়ম

রবি নেটওয়ারে আসার জন্য আপনি আপনার এলাকার নিকত বর্তি কাস্টমার কেয়ারে যান ।  রবি সেবা কেন্দ্রে আপনার করনীয় ।

  • আপনার জাতীয় পরিচয়পত্র সাথে নিন এবং যে অপারেটর এর নাম্বার পরিবর্তন করবেন সেই সিমটি সাথে নিন ।
  • অপারেটর পরিবর্তন করার জন্য বায়োমেট্রিক রেজিষ্টেশন করুন ।
  • এবার নিয়ে নিন নতুন রবি সিম ।

কনফার্মেশন এসএমএস পেলেই রবির নতুন সিম ব্যবহার করতে পারবেন ।

গ্রামিনফোন অপারেটরে আসার নিয়ম

জিপি নেটওয়ার্কে আসার জন্য আপনার আশে পাশের GP Customer Care এ যান । জিপি সেবা কেন্দ্র যাবার পর আপনার এনআইডি (NID) কার্ড এর সকল তথ্য তাদের সাথে উপস্থাপন করুন । এরপর ফিঙ্গারপ্রিন্ট এর কাজ সম্পর্ন করে নিন । বর্তমান অপারেটর থেকে অন্য অপারেটরে যাবার পর MNP অনুমোদন এর এসএমএস পাবেন । এসএমএস পাবার পর আপনার সিম অপারেটর বদল হবে। আপনার আগের অপারেটরের সিম বন্ধ হয়ে যাবে । এবার আপনি জিপি অপারেটের সকল প্রকার সুযোগ সুবিধা উপভোগ করতে পারবেন ।

বাংলালিংক অপারেটরে আসবেন কিভাবে

আপনার বর্তমান ব্যবহৃত নাম্বার ঠিক রেখেই আপনি অন্য যেকোন অপারেটরে যেতে পারবেন । সেটি করার জন্য আপনার ফোন নাম্বার সাথে ভোটার আইডি কার্ডের কপি সাথে নিয়ে আপনার এলাকার বাংলালিংক সেবা কেন্দ্রে চলে আসুন । এবার ভেরিফিকেশন করার জন্য আপনার ফিঙ্গারপ্রিন্ট প্রদান করুন । এরপর বাংলালিংক রেজিষ্ট্রেশন ফর্ম পরুন করে নিন । সব কিছু ঠিক করার পর নতুন বাংলালিংক সিম সার্ভিস প্রোভাইডার এর কাছ থেকে সংগ্রহ করুন । উপোভগ করুন বাংলালিংক অপারেটরের সকল প্রকার সার্ভিস ।

এয়ারটেল অপারেটরে আসবেন যেভাবে

মোবাইল নাম্বার পোর্টাবিলিটি (MNP) এর মাধ্যেমে এখন আপনার নাম্বার ঠিক রেখে Airtel বা অন্য যেকোন অপারেটরে আসতে পারেন নাম্বার না বদল করে । কিভাবে তা দেখে নেই ।

  • আপনার নিকটস্থ এয়ারটেল সেবা কেন্দ্র যান ।
  • আপনার জাতীয় পরিচয়পত্র এর ফটোকপি এবং যে অপারেটর পরিবর্তন করবেন, সে নাম্বারটি ।
  • এবার আঙ্গুলের ছাপ দ্বারা আপনার সিমটি বায়োমেট্রিক করুন ।
  • আপনার Airtel নতুন সিম সার্ভিস প্রোভাইটার এর কাছ থেকে সংগ্রহ করুন ।

টেলিটক অপারেটর বদল করার নিয়ম

মোবাইল নাম্বার পরিবর্তন না করেই অপারেটর পরিবর্তন করুন । অপারেটর পরিবর্তন করার জন্য আপনি আপনার নিকটস্থ teletalk সেবা কেন্দ্রে যান । সেবা কেন্দ্রে যাবার সময় আপনার NID কপি সাথে নিন । এরপর সার্ভিস প্রোভাইটার দ্বারা আপনার ভেরিভেকেশনের কাজ সম্পর্ন করুন । অর্থাৎ ফিঙ্গারপ্রিন্ট দিন । এবার আপনার নতুন টেলিটক সিমটি সংগ্রহ করুন ।

উপরক্ত নিয়ম অনুসারে আপনি নাম্বার ঠিক রেখে অপারেটর বদল করতে পারবেন । অপারেটর বদল সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে ভিজিট করুন , grameenphone.combanglalink.net , robi.com.bd , bd.airtel.com , teletalk.com.bd

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!