তেলাকুচা পাতার চপ

তেলাকুচা এর প্রকার ভেষজ উদ্ভিদ যাতে প্রচুর বিটা-ক্যারোটিন আছে । তেলাকুচা পাতার উপকারিতা অনেক । এটি কবিরাজী চিকিৎসায় বেশ কিছু রোগের ঔষধ হিসেবে ব্যবহৃত হয় যেমন:- কুষ্ঠ, জ্বর, ডায়াবেটিস, হাঁপানি, ব্রংকাইটিস ও জন্ডিস । এটি অনেকে সবজি হিসেবেও খায় । এর বোটানিক্যাল নাম Coccinia grandis বা Coccinia Cordifolia Cogn । আর তাই আজ আমরা নিয়ে এসেছি আপনাদের জন্য এই বিশেষ উপকারী লতা জাতীয় গাছ তেলাকুচা পাতার চপ এর রেসিপি

তেলাকুচা যেখানে সেখানে জম্মায়, তাই সহজেই পেয়ে যাবেন এর পাতা । একে স্থানীয়ভাবে কুচিলা, তেলা, তেলাকচু, তেলাহচি, তেলাচোরা কেলাকচু, কেলাকুচ, তেলাকুচা বিম্বী ইত্যাদি নামে ডাকা হয় । নিচে তেলাকুচার গাছ এর ছবি দেয়া হলো ।

তেলাকুচা পাতার ছবি

তেলাকুচা পাতার চপ তৈরি

তেলাকুচা পাতার উপকারিতা নিয়ে কিছুটা ধারনা পেয়েছেন, এবার চলুন ধাপে ধাপে দেখি কিভাবে এর পাতা দিয়ে মচমচে ভাজা চপ বানানো যায় । প্রথমেই উপকরন গুলো দেখে নেই ।

চপ তৈরির উপকরন

চপ বানানোর জন্য যে উপকরন গুলো লাগবে সেগুলো নিচে দেয়া হলো ।

  • বেসন-পরিমান মত (অবশ্যই টাটকা বেসন হতে হবে,পুরনো বেসনে চপ খুব একটা ভাল হবে না)
  • শুকনো মরিচ গুড়া-পছন্দ মত,
  • জিরা গুড়া বা বাটা- আধা চা চামুচ,
  • রসুন বাটা- আধা চা চামুচ,
  • খাবারের সোডা – ১-৩ টিমটি (বেশি দিবেন না),
  • লবন-স্বাদমত,
  • রাঁধুনি বা অন্য কোন গরম মসলার গুড়া- ১ চামুচ
  • ভাঁজার জন্য তেল
  • গরম তেল – ১ চামুচ
  • আর তেলাকুচার পাতা

প্রথমেই তেলাকুচার পাতা সংগ্রহ করুন । পাতার বোটা না ফেললেই ভালো হয়, আর কচি কিংবা পাকা নয় এমন পরিস্কার পাতা গুলো বেছে নেবেন চপ তৈরির জন্য।

তেলাকুচা পাতার চপ প্রস্তুত প্রনালী

প্রথমে পাতা ডুবানোর জন্য বেসন তৈরি করে নিতে হবে । বেগুনি তৈরি র মতোই এর বেসন ও তৈরি করে নিতে পারেন ।

একটি পাত্রে পরিমান মত বেসন এর সাথে পছন্দ মতো গুড়া মরিচ, জিরা গুড়া বা বাটা, রসুন বাটা, খাবারের সোডা ও স্বাদ মত লবন নিয়ে ভালো মতো মিক্স করুন ।

এবার সংগ্রহ করা পাতা গুলো ভালো ভাবে ধুয়ে নিন যাতে কোন ময়লা না থাকে ।

তেলাকুচা পাতা ভালো করে ধুয়ে রাখা হয়েছে

এর পর যেহেতু পাতা গুলো পাতলা, তাই নিচের ছবির মতো মুড়িয়ে নিন, এতে করে আকারে ছোট হবে এবং ভালোভাবে বেসন লাগবে । পাতার বোটা রেখে দিতে পারেন, আবার ছিড়েও ফেলতে পারেন ।

পাতাগুলোকে মুড়িয়ে রাখা হয়েছে

এবার একটি কড়াই এ তেল দিয়ে তেল গরম করতে দিন । পিয়াজু কিংবা বেগুনের চপের মতো তেলাকুচার পাতার চপ ও ডুবো তেলে ভাজতে হয় । তেল গরম হয়ে গেলে এবার তৈরি করা বেসন মিক্স এ তেলাকুচার মোড়ানো পাতা গুলো থেকে একটি একটি করে বেসন মিক্স এ ডুবিয়ে নিয়ে গরম তেলে ছেড়ে দিন ।

বেসন এর মাঝে ডুবানো হচ্ছে তেলে ছেড়ে দেবার আগে

নিচের ছবিতে দেখছেন গরম তেলে ছাড়া হয়েছে তেলাকুচার পাতা ।

গরম তেলের কড়াই এ ছাড়া হয়েছে চপ ভাজার জন্য

এবার তেলে ছাড়া চপগুলোর এক পাশ বাদামি হলে উলটিয়ে দিন ।

মচমচে ভাজা তেলাকুচার চপ কড়াই থেকে উঠিয়ে নেয়া হচ্ছে

এবার ভাজা হলে উঠিয়ে নিন । উঠানো মচমচে চপ গুলো একটি পাত্রে রাখুন, তবে সেই পাত্রে টিশু দিয়ে তার উপর সদ্য ভাজা চপ রাখলে অতিরিক্ত তেলগুলো শুষে নেবে ।

এবার গরম গরম থাকতেই সদ্যা ভেজে নেয়া মচমচে তেলাকুচার পাতার চপ গুলো পরিবেশন করুন আপনার পরিবার পরিজন সের মাঝে 🙂 আর কেমন লাগলো আমাদের জানাতে ভুলোবেন না 🙂 ভালো থাকবেন …

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!